অনশনে থাকা সেই প্রেমিকার সাথে পুলিশের বিয়ে

ভোলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নে চরআনন্দ গ্রামে পুলিশ সদস্যের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশনে থাকা সেই প্রেমিকার সাথে অবশেষে পুলিশ সদস্যের বিয়ে হয়েছে।

সোমবার রাতে দুজনের সম্মতিতে ৪ লক্ষ টাকা কাবিননামায় প্রেমিকাকে বিয়ে করেন আকরাম হোসেন নামের ওই পুলিশ সদস্য। বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ইলিশা ইউনিয়নের বিবাহ রেজিস্ট্রার কাজী হুমায়ন আহমেদ ও ইউপি সদস্য কামাল হোসেন রতন।

এর আগে গত শনিবার থেকে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকা শারমিন পুলিশ সদস্য মো: আকরামের ঘরে অবস্থান করে অনশন শুরু করে।

এ সময় শারমিন দাবি করেন, গত ৫ বছর ধরে বিয়ের কথা বলে তার সাথে মো: জাহাঙ্গিরের ছেলে ঝালকাঠি জেলায় কর্মরত পুলিশ সদস্য আকরাম প্রেমের সম্পর্কে জড়ায়। এ ঘটনা জানাজানি হলে এক পর্যায়ে স্থানীয় বারেক মেম্বার, কামাল মেম্বার ও পূর্ব আলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসনাইন আহমেদ হাসানের সাহায্যে তাদের বিয়ের বিষয়ে লিখিত চুক্তি হয়। কিন্তু তার কিছুদিন পর আকরাম হোসেন শারমিনকে বিয়ে করবে না বলে জানিয়ে দেয়। তাই বাধ্য হয়ে শারমিন তার বাড়িতে অনশন করে। এমনকি বিয়ে না করলে তিনি আত্মহত্যা করবেন বলে জানান সাংবাদিকদের।

তবে আকরামের বড় বোন ও ছোট ভাইয়ের দাবি, শারমিনের বাড়ির পাশে আকরাম তার বন্ধুর সাথে দেখা করতে গেলে শারমিনের পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় বারেক মেম্বার, কামাল মেম্বার এবং হাসান চেয়ারম্যান জোর করে তাদেরকে বিয়ের চুক্তি নামায় সাক্ষর করায়। প্রেমের সম্পর্ক হলে জোড় করার কোন দরকার ছিলনা বলেও জানান তারা।

তবে এসব বিষয় মিথ্যা বলে দাবি করেন পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসনাইন আহমেদ হাসান মিয়া জানান।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন ও লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *