ওরস মাহফিলে বাধা দেয়ায় পুলিশের উপর হামলা

ভাষা সৈনিক অ্যাডভোকেট মরহুম গাজিউল হকের বগুড়া শহরের বাসভবন চত্বরে বুধবার রাতে ওরস মাহফিলে বাধা দেয়ায় পুলিশের উপর হামলা হয়েছে। এতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ সাবেক পৌর কমিশনার নূরুল আমিন নূরুসহ ২২ জনকে আটক করেছে। আহত বগুড়া সদর থানার উপশহর পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ ইন্সপেক্টর নান্নু খান ও এসআই জাহিদকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তি জানান, ভাষা সৈনিক অ্যাডভোকেট মরহুম গাজিউল হকের পিতা মরহুম সিরাজুল হক চিশতীর অনুসারীরা প্রতি বছরের মতো এবারো ২৫ মার্চ রাতে বগুড়া শহরের সুলতানগন্জ পাড়া

গোয়ালগাড়ীস্থ বাসভবন চত্বরে বার্ষিক ওরস মাহফিলের আয়োজন করেন। তবে করোনা ভাইরাস সতর্ককতার কারণে পুলিশ ওরস আয়োজনে নিষেধ করে। কিন্তু মরহুম গাজিউল হকের ছেলে ও ওরশ আয়োজক রুহুল গাজী তা অমান্য করেন । একপর্যায়ে বুধবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ ইন্পক্টের নান্নু খানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সেখানে গিয়ে বাধা দিলে ওরশে অংশগ্রহণকারীরা পুলিশের উপর হামলা করে।

তারা নান্নু খান ও জাহিদকে মারপিট করে একটি রুমে আটকে রাখে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে নান্নু ও জাহিদকে আহত অবস্থায় শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করে। এসময় সেখান থেকে পুলিশ পৌর সভার ১ নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার নূরুল আমিন নুরুসহ ২২ জনকে আটক করে থানায় নেয়। তাদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা ও মারপিটের অভিযোগে মামলঅ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সূত্র: নয়াদিগন্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *