কক্সবাজার ইনানী বিচে নান্দনিক রিসোর্ট রয়েল টিউলিপ সী পার্ল

0
37

বিশ্বের সর্ববৃহৎ সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারের ইনানী বিচে গড়ে তোলা হয়েছে ফাইভ স্টার হোটেল রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্ট এন্ড স্পা (Royal Tulip Sea Pearl Beach Resort And Spa)। এক পাশে সমুদ্র আর অন্য পাশে আকাশচুম্বী পাহাড় নিয়ে পর্যটকদের স্বাগত জানাতে সর্বদা প্রস্তুত স্পেনীয় স্থাপত্যরীতিতে নির্মিত লাক্সারিয়াস এই রিসোর্টটি। প্রায় ৫০ বিঘা জায়গা জুড়ে বিস্তৃত রিসোর্টের ভেতর এবং বাহিরের প্রতিটি নির্মাণেই আভিজাত্য এবং স্বকীয়তা বিশেষভাবে চোখে পড়ে, যা হোটেলে আগত অতিথিদের কাছে রাজকীয় অনুভূতি এনে দেয়।

রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টটিতে রয়েছে ৪৯৩টি কক্ষ। যেখানে হিল ভিউ এবং সি ভিউ এই দুই রকম ভিউয়ের মিশ্রণ রয়েছে সুপেরিয়র কক্ষে। প্রিমিয়াম সি ভিউ স্যুইটে মিলবে কিচেন, ডাইনিং ও লিভিং এরিয়া। প্যানারমিক সি ভিউ স্টুডিও স্যুইটে মিলবে কিচেন, ডাইনিং, লিভিং এরিয়া ও ব্যালকনি। দুই ধরনের ভিন্ন আয়তনের এক্সিকিউটিভ স্যুইটেও রয়েছে একই ধরনের সুবিধা। ফ্যামিলি স্যুইটে আছে সৈকতমুখী ব্যালকনি, আলাদা লিভিং স্পেস, তিনটি ওয়াশরুম, একটি মাস্টার বেডরুম এবং একটি চিলড্রেনস রুম। এছাড়াও বিশেষ ব্যক্তিদের জন্য রয়েছে প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুইট। বিশাল আয়তনের রাজসিক অন্দরসজ্জা ও ফার্নিচারের পাশাপাশি এখানে রয়েছে বড় একটি বারান্দা। আর নবদম্পতিদের জন্য রয়েছে লাক্সারি হানিমুন স্যুইট, যেখানে একটি সংসারের প্রয়োজনীয় সবকিছুই রাখা হয়েছে আর সেই সাথে থাকছে জ্যাকুজি এবং সুইমিংপুল। এসব ছাড়াও রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টের প্রতিটি রুমেই রয়েছে মিনিফ্রিজ, টি/কফি মেকার, টিভি, পানির বোতল, শাওয়ার কিউবিকল, ২৪ ঘণ্টার রুম সার্ভিস এবং ফ্রি ওয়াইফাইয়ের সুবিধা।

রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টের অন্যান্য সুযোগ সুবিধার মধ্যে রয়েছে আন্তর্জাতিকমানের বার, কফি শপ, সুইমিং পুল, শিশুগ্রাউন্ড, ওয়াটার পার্ক, টেনিস, ব্যাডমিন্টন কোর্ট, থ্রিডি মুভি হল, বিলিয়ার্ড, ব্যায়ামাগার এবং স্পা। আর আউটডোর এ্যাকটিভিটির মধ্যে আছে প্যারাসেইলিং, স্নোরকেলিং, ডিপ সি ফিশিং এবং স্পিডবোট রাইড সুবিধা। এছাড়াও সম্মেলন ও উৎসব আয়োজনের জন্য রয়েছে ১০ হাজার বর্গফুট বিস্তৃত জায়গা, দুটি সেমিনার কক্ষ ও একটি বিশাল বলরুম।

রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টের বিশেষ বৈশিষ্ট হল এই রিসোর্টের নিজস্ব সমুদ্র সৈকত রয়েছে। রিসোর্ট থেকে অল্প দূরত্বে রয়েছে পর্যটকদের ভ্রমণের অন্যতম আকর্ষণ হিমছড়ি ঝর্ণা, দরিয়া নগর ও বার্মিজ মার্কেট। খোলামেলা জায়গা এবং মুক্তমঞ্চ থাকার ফলে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং, গালা নাইট, ফ্যামিলি প্রোগ্রাম, ফ্যাশন শো, সভা, সমাবেশসহ যে কোন ধরনের ইভেন্ট অনায়াসেই আয়োজন করা যায়।

কিভাবে যাবেন:
কক্সবাজার থেকে নিজস্ব পরিবহনে সহজেই চলে যেতে পারবেন ইনানী বীচ সংলগ্ন রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টে। আর যদি নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা না থাকে তবে কক্সবাজারের কলাতলী থেকে মাইক্রো কিংবা সিএনজি ভাড়া নিয়ে সহজেই চলে যেতে পারবেন। আর কলাতলী অবস্থিত রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টের অফিসে বুকিং-এর মাধ্যমে রিসোর্টের গাড়িতে যাবার সুযোগ রয়েছে।

কোথায় খাবেন:
খাবারের জন্য রয়েল টিউলিপে আছে পাঁচটি বিশেষায়িত রেস্টুরেন্ট, ১টি মাল্টি কুজিন ডাইনিং, আইসক্রিম পার্লার এবং জুস বার। এখানে দেশীয় খাবারের পাশাপাশি আপনি আপনার পছন্দমত খাবার খেতে পারবেন।

খরচ:
রয়েল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্টে বিভিন্ন ক্যাটাগরির রুম রয়েছে। এসব রুমের কোন একটিতে রাত্রিযাপন করতে হলে আপনাকে ১২ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ ১৮ হাজার টাকা গুনতে হবে। তবে এখানে সারা বছরই বিভিন্ন হারে ছাড়ের ব্যবস্থা থাকে।

ঢাকা অফিস:
এফআর টাওয়ার (১৮ তলা), ৩২ কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউ, ফোন: 02-9820619

কক্সবাজার অফিস:
রয়েল টিউলিপ সি পার্ল বিচ রিসোর্ট ও স্পা
জালিয়াপালং, ইনানী, উখিয়া
+88-01970-660066, +88-029140454

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে