করোনায় অনলাইনে পশুর হাট

3

করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এখনো কমেনি মোটেও। জনজীবন এখনো প্রায় স্থবির। এরই মধ্যে আসছে ঈদুল আজহা। রুদ্ধ পরিস্থিতিতেও তাই ঈদুল আজহার অন্যতম অনুষঙ্গ কোরবানির পশু নিয়ে শুরু হয়েছে প্রস্তুতি।

খামারি থেকে শুরু করে কর্তৃপক্ষ প্রস্তুতিতে পিছিয়ে থাকতে রাজি নয় কেউই। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় এরই মধ্যে জানিয়েছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বসবে হাট। তবে পশুর হাটে গিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানবে ক’জন তা নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন। আর সে কারণেই সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, এবারে ‘অফলাইনে’ নয়, অনলাইনেই জমে উঠবে পশুর হাট। ই-কমার্স উদ্যোক্তারা বলছেন, দেশে অনলাইনে পশুর হাটের যাত্রা শুরু প্রায় এক দশক হলো।

এর মধ্যে গত কয়েক বছরে অনলাইনে পশুর হাটের জনপ্রিয়তার গ্রাফটা বেশ সোজা ঊর্ধ্বমুখী। অনলাইনে পশুর হাটের কেনাকাটা এ বছর আগের সব ইতিহাসকে ছাপিয়ে যাবে। ঈদুল আজহা সামনে রেখে এরই মধ্যে অনলাইনে গরুর বুকিং দিয়েছেন গণমাধ্যমকর্মী আল-আমিন দেওয়ান। একেবারে প্রান্তিক খামারিদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা গরু কোরবানি দেওয়ার লক্ষ্য রয়েছে।

ওয়েল অ্যান্ড সিড নামের একটি অর্গানিক প্রতিষ্ঠান এবারই অনলাইন প্ল্যাটফর্মে কোরবানির গরুর বুকিং নিচ্ছে। ফেসবুকে পশু কেনাবেচার জন্য বেশ কিছু গ্রুপ রয়েছে। সেখানে অনেক উদ্যোক্তা এরই মধ্যে কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন। অনেক অ্যাগ্রো ফার্মও বিভিন্ন অনলাইনে প্ল্যাটফর্মে তাদের গরুর বিজ্ঞাপন দিতে শুরু করেছে। কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপ ও পেজের মাধ্যমে গরুর বুকিং নিচ্ছে।

করোনার কারণেই সম্ভবত এবার রেসপন্স ভালো। সামনে আরও বাড়বে বলে আশা করা যাচ্ছে। আর যারা বুকিং দিচ্ছেন, ঈদের দু’দিন আগে তাদের বাসায় গরু পৌঁছে দেওয়া হবে। ওয়েল অ্যান্ড সিডের পক্ষ থেকে জানা যায়, গরুর ওজন অনুযায়ী কেজিপ্রতি দামের ভিত্তিতে ‘ফিক্সড প্রাইসে’ যেমন গরু বিক্রি করা হবে, তেমনি ক্রেতাদের গরু দেখিয়ে দরদাম করেও বিক্রি করবেন গরু।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে