ঠাকুরগাঁওয়ে কিশোরী অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় যুবক গ্রেপ্তার

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নে এক কিশোরীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগের মামলায় সাব্বির ইসলাম (১৮) একজনকে গ্রেপ্তার করেছে সদর থানা পুলিশ। শনিবার দুপুরে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন সদর থানার ওসি তদন্ত গোলাম মর্তুজা।

কালের কণ্ঠকে ওসি জানান, সালন্দর মোল্লাপাড়ার বাসিন্দা ওই কিশোরীর সাথে পাশ্ববর্তী পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার আরাজী সাকোয়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে সাব্বির ইসলামের কয়েকমাস পূর্বে মোবাইল ফোনে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২৪ জুন রাতে সাব্বির ওই কিশোরীর বাড়িতে প্রবেশ করে এবং বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফুসলিয়ে তাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় বৃষ্টি শুরু হলে সালন্দর মহিলা কলেজের বারান্দায় আশ্রয় নেয় তারা এবং সেখানেই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে সাব্বির। পরদিন আউলিয়াপুর ইউনিয়ন এলাকায় একটি বাড়িতে ওই কিশোরীকে আটক করে রাখে সাব্বির ।

এদিকে মেয়েকে বাড়িতে না পেয়ে নিজ আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে খোঁজাখুজি করে ওই কিশোরীর বাবা। পরে গোপন সূত্রে জানতে পারেন তার মেয়েকে আউলিয়াপুরস্থ একটি বাড়িতে আটকিয়ে রাখা হয়েছে। স্থানীয়দের সাথে নিয়ে পরে মেয়েকে উদ্ধার করেন কিশোরীর বাবা। পরে মেয়ের কাছ থেকে বিস্তারিত জানতে পেরে শুক্রবার রাতে সদর থানায় সাব্বির হোসেন ও তার মামা শুভকে আসামি করে একটি অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন কিশোরীর বাবা। মামলার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাব্বির ইসলামকে গ্রেপ্তার করে। শনিবার সদর হাসপাতালে কিশোরীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: