দিল্লিতে এএপি বিধায়কের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি, নিহত ১

ভারতের রাজধানী দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল সমর্থন পেয়ে মঙ্গলবার ফের ক্ষমতায় অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নেতৃত্বাধীন আম আদমি পার্টি (এএপি)।

কিন্তু নির্বাচনের ফল ঘোষণা হতে না হতেই সেখানে ছড়িয়ে পড়ল সহিংসতা। মেহরুলির এএপি বিধায়ক নরেশ যাদবের গাড়িবহর লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুর্বৃত্তরা। খবর এনডিটিভির।

এতে ওই বিধায়ক ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেলেও প্রাণ হারান এক এএপি কর্মী। আহত হয়েছেন আরও একজন দলীয় কর্মী।

জানা গেছে, বিধায়ক নরেশ যাদবের সঙ্গেই ছিলেন অশোক মান নামে ওই এএপি কর্মী, দিল্লি নির্বাচনে জয়ের পর মঙ্গলবার মন্দিরে পূজা দিয়ে গভীর রাতে বাড়ি ফেরার পথেই হামলা হয় তাদের ওপর।

এএপির অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করা হয়, মন্দির থেকে ফেরার পথে এএপি বিধায়ক নরেশ যাদব এবং তার সঙ্গে থাকা স্বেচ্ছাসেবীদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই এক এএপি কর্মী নিহত হয়েছেন এবং আরও একজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

পুলিশ বলছে, ওই ঘটনায় এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে, গুলি চালানোর পেছনের উদ্দেশ্য জানার জন্য তদন্ত করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে নরেশ যাদব দক্ষিণ দিল্লির কিশানগড় গ্রামের একটি মন্দির থেকে একটি হুডখোলা গাড়িতে করে ফিরছিলেন।

এ সময় তার সঙ্গে কয়েকজন কর্মী-সমর্থকও ছিলেন। সেই সময়েই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিরা তার গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

নরেশ যাদব বলেন, সেই সময় ওই অঞ্চলে জয়ের আনন্দে ব্যাপক আতশবাজি পোড়ানো হচ্ছিল। তাই প্রাথমিকভাবে অনেকেই গুলি চালানোর শব্দকেও আতশবাজিই ভেবেছিল।

ঘটনার পরেই বিষয়টি নিয়ে টুইট করেন এএপি বিধায়ক সঞ্চয় সিং। তিনি লেখেন– মেহরুলির বিধায়ক নরেশ যাদবের ওপর হামলা হল … দিল্লির আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এতটাই ভয়ঙ্কর যে নির্বাচনের ফল প্রকাশের দিনেই বিধায়কের সঙ্গীকে খুন হতে হলো।

সুত্র: যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *