দুর্যোগে সবার আগে মানুষের পাশে দাঁড়ায় আওয়ামী লীগ: ওবায়দুল কাদের

25

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দুর্যোগে সবার আগে মানুষের পাশে দাঁড়ায় আওয়ামী লীগ। জন্মলগ্ন থেকে আজ অবধি বিগত সত্তর বছরে মানুষের পাশে থেকে আস্থা অর্জন করেছে মাটি ও মানুষের দল আওয়ামী লীগ। সংকটে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে হাত বাড়িয়ে দেয়া এ দলের ঐতিহ্য।

তিনি আরো বলেন, সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ করোনা সংকটে সারাদেশের অসহায় কর্মহীন মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে এক উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

সোমবার (২৯ জুন) টিএসসিতে ডাকসুর সদস্য তানভীর হাসান সৈকত আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও করোনার এই দুর্যোগে অসহায় ভাসমান মানুষের ২ বেলা খাবার বিতরণ কর্মসূচিতে বাসা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে একথা বলেন মন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রতিদিনই আমি হাসপাতালগুলোর সমন্বয়ের কথা বলছি। অসহায় মানুষ যখন হাসপাতালের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়ায়, কোথাও ঠাঁই পায় না। চিকিৎসা ক্ষেত্রে আবারো অনুরোধ করছি সমন্বয় গড়ে তোলার জন্য। হাসপাতালে হাসপাতালে ছুটাছুটি করতে করতেই পথিমধ্যে রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক।

তিনি বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এরইমধ্যে করোনার দ্বিতীয় আঘাত হানতে শুরু করেছে। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশে গতকাল করোনা শনাক্ত হয়েছে প্রায় ২০ হাজার। এই কঠিন সময়ে যদি আমাদের সচেতনতা বোধ জাগ্রত না হয় ,তবে কবে হবে? নিজের সুরক্ষায় নিজে জাগ্রত না হলে, কে জাগাবে ? স্বাস্থ্যবিধির উদাসীনতা ও অসচেতনতা জীবনকে ছিটকে দিতে পারে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সংকটে অসহায় মানুষের পাশে মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দেয়াই আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য। ঘটনার শুরু থেকে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, সাহায্য সহযোগিতা করে যাচ্ছে। সারাদেশে ছাত্রলীগসহ অন্যান্য সংগঠনের জন্য এই কাজ অনুকরণীয় হয়ে থাকবে। যারা ভাসমান- রাস্তাঘাট ও ফ্লাইওভারের নীচে বসবাস করছেন তাদের কোনো তালিকা নেই। তাদের দুই বেলা খাবার দেয়ার পাশাপাশি, তাদের তালিকা ছাত্রলীগকে করতে হবে। এজন্য ছাত্রলীগকে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন ওবায়দুল কাদের।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন