দেহ ব্যবসায় নামতে নারাজ যুবতীর গোপনাঙ্গে অ্যাসিড ঢালল বর্বর স্বামী


স্বামী নিজে হাতে স্ত্রীকে অন্ধকারের পথে নামাতে চাইছিল। স্ত্রী দেহ বেচে উপার্জন করবে। সেই টাকায় মচ্ছব করবে স্বামী। এ জন্য নানা ভাবে চলছিল মগজধোলাই। কখনও স্বামী একা, কখনও আবার তার সঙ্গী ননদ। কিন্তু, যুবতীর অনমনীয় মনোভাবে, ভাইবোনের উদ্দেশ্য সিদ্ধি হচ্ছিল না। 

রাগে তাই যুবতীর যৌনাঙ্গে অ্যাসিড ঢেলে দেয় বর্বর স্বামী। তাতে উসকানি দেয় ননদ। বীরভূমের নলহাটি থানার ভবানন্দপুর গ্রামের ওই গৃহবধূ এখন আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। পুলিশ বছর পঁয়ত্রিশের ওই যুবতীর স্বামী ও ননদকে গ্রেফতার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা-সহ একাধিক ধারায় অভিযোগ রুজু হয়েছে। 

হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে পুলিশের কাছে ওই নিগৃহীতা অভিযোগ করেন, স্বামী ও ননদ মিলে জোর করে তাঁকে দেহ ব্যবসায় নামাতে চাইছিল। তিনি মুখের উপর না বলায়, শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার চলতে থাকে। সেই রাগেই ইচ্ছাকৃত ভাবে গোপনাঙ্গে অ্যাসিড ঢেলে দেওয়া হয়েছে। 

নিগৃহীতার অভিযোগ থেকে জানা যায়, স্বামী থাকে ভবানন্দপুর গ্রামের শ্বশুরবাড়ি থেকে মাড়গ্রামে, এক বোনের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানেই শুরু হয় নৃশংস অত্যাচার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: