নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গেল র‌্যাবের মাইক্রোবাস, আহত ৩

বহুমুখী পদ্মাসেতুর জাজিরা প্রান্তের ৩০ ও ৩১ নম্বর পিলারের ওপর ২৪ তম স্প্যান বসানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর দেড়টা নাগাদ স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হয়েছে এবং এর মাধ্যমেই দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৩.৬০ কিলোমিটার।

স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হওয়ার বিষয়ে পদ্মা সেতু প্রকল্পের উপসহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির বার্তা২৪.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন।

২৪ তম স্প্যান পিলারের কাছে নিয়ে আসার পরপরই ক্রেনের মাধ্যমে ৩০ এবং ৩১ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হয়। প্রকল্প এলাকায় কুয়াশা না থাকায় আবহাওয়াজনিত কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি।

২৪ তম স্প্যান বসানো হয়েছে
পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণে মূল সেতু নির্মাণ কাজ ৮৫.৫০ শতাংশ এবং নদী শাসনের কাজ ৬৬ শতাংশ শেষ হয়েছে। প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৭৬.৫০ শতাংশ শেষ হয়েছে।

পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি। প্রতিটি পিলারের রাখা হয়েছিল ছয়টি পাইল। একটি থেকে আরেকটি পিলারের দূরত্ব ১৫০ মিটার। এই দূরত্বের লম্বা ইস্পাতের কাঠামো বা স্প্যান জোড়া দিয়েই সেতু নির্মিত হচ্ছে। ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে। স্প্যানের অংশগুলো চীন থেকে তৈরি করে বাংলাদেশে আনা হয়।

দ্বিতল পদ্মা সেতু হচ্ছে মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরার মধ্যে। মূল সেতুর দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার।

পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি
তাছাড়া, এই বছরের জুলাই মাস নাগাদ সকল স্প্যান বসানো শেষ হয়ে যাবে এবং আগামী বছরের জুলাই মাস নাগাদ পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল করবে বলে জানা গেছে। একই সাথে বেশিরভাগ পিলার প্রস্তুত হওয়ার ফলে চলতি বছর প্রতি মাসে তিনটি করে স্প্যান বসানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে কিন্তু জানুয়ারি মাসে বসেছে দুটি স্প্যান এবং এই মাসে এখন পযন্ত বসেলো ২ টি স্প্যান।

উল্লেখ্য এর আগে, গত মাসের ১৪ জানুয়ারি জাজিরা প্রান্তরে ৩২ এবং ৩৩ নাম্বার পিলারের ওপর বসেছে ২১ তম স্প্যান এবং ২৩ জানুয়ারি মাওয়া প্রান্তের ৫ এবং ৬ নম্বর পিলারের ওপর বসেছে ২২তম স্প্যান এবং চলতি মাসের ২ ফেব্রুয়ারি বসেছে ২৩তম স্প্যান।

সুত্র: র্বাতা২৪

শেয়ার করুন ও লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: