পথে পড়েছিলেন বৃদ্ধা, হাসপাতালে নিলেন তাঁরা

অসুস্থ হয়ে সড়কের ওপর পড়ে ছিলেন বয়স্ক এক নারী। পরে তাঁকে পুলিশের সহযোগিতায় ভ্যানে করে হাসপাতালে নেন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকেরা। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্টাফ কোয়ার্টারের সামনে, ৩১ মার্চ। ছবি: জুয়েল শীল
মাথার ওপর ঝাঁ ঝাঁ রোদ। এর মধ্যেই রাস্তায় কাতরাচ্ছিলেন সত্তোরোর্ধ্ব অসুস্থ এক নারী। আশপাশ দিয়ে অনেকে হেঁটে গেলেও কেউ ফিরে তাকাচ্ছিলেন না। এ সময় খবর পেয়ে এগিয়ে আসেন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকেরা। পরে পুলিশের সহায়তায় তাঁরা ওই বৃদ্ধাকে নিয়ে যান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। উদ্ধারকারী তরুণেরা বলছেন, তাঁরা সাধারণ কর্তব্য পালন করেছেন মাত্র।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ওই অজ্ঞাত নারী চট্টগ্রাম নগরের চকবাজার এলাকার পিপলস হাসপাতালের সামনের সড়কে পড়ে ছিলেন। অদূরের অলি খা মসজিদ এলাকায় তখন জীবাণুনাশক ছিটাচ্ছিলেন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের চার স্বেচ্ছাসেবক। এমন সময় স্থানীয় এক তরুণ তাঁদের কাছে বৃদ্ধার বিষয়টি জানান। এরপর তাঁরা সেখানে যান। এরপর তাঁরা জাতীয় জরুরি সেবাকেন্দ্রের ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেন। সেখান থেকে স্থানীয় পাঁচলাইশ থানার নম্বর দেওয়া হয়। পরে বিভিন্ন মাধ্যমে সেখানে যোগাযোগ করার পর পুলিশের চার সদস্য ঘটনাস্থলে আসেন। এরপর একটি ভ্যানে করে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান। এখন হাসপাতালের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ওই বৃদ্ধা। তাঁকে সার্বক্ষণিক দেখভাল করছেন বিদ্যানন্দের স্বেচ্ছাসেবকেরা।

তবে ওই বৃদ্ধার নাম-ঠিকানা পাওয়া যায়নি। তিনি ডায়াবেটিসসহ নানা সমস্যায় ভুগছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

বিদ্যানন্দের স্বেচ্ছাসেবকদের একজন মোহাম্মদ মোবারক প্রথম আলোকে বলেন, জাকির হোসেন, ওমর ফারুক, হাসান মণ্ডলসহ তিনি করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে বিদ্যানন্দের নেওয়া জীবাণুনাশক ছিটানোর কার্যক্রম পরিচালনা করছিলেন। এমন সময় খবর পেয়ে তাঁরা ঘটনাস্থলে আসেন। কিন্তু সড়কে কোনো গাড়ি না থাকায় তাঁরা পুলিশের সহায়তা চান। পরবর্তী সময়ে পুলিশের সদস্যরা এলে তাঁদের সহযোগিতায় হাসপাতালে নিয়ে যান।

নিয়মিত মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে তাঁরা বৃদ্ধার পাশে দাঁড়িয়েছেন বলে জানান মোহাম্মদ মোবারক। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকেরা ওই বৃদ্ধাকে সার্বক্ষণিক দেখভাল করে যাচ্ছেন। পাশাপাশি বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের এক টাকায় চিকিৎসা প্রকল্পের অধীনে ওই বৃদ্ধার জন্য চিকিৎসা ও ওষুধের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বিদ্যানন্দের স্বেচ্ছাসেবক ও পুলিশের এমন মানবিক উদ্যোগের প্রশংসা করছেন অনেকেই। ঘটনাস্থলে উপস্থিত কয়েকজন পথচারী বলেন, ওই বৃদ্ধাকে দ্রুত উদ্ধার করা না গেলে বিপদ ঘটতে পারত।

শেয়ার করুন ও লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: