পেছাল এইচএসসি পরীক্ষা

আজ বা আগামীকালের মধ্যেই এইচএসসি পরীক্ষা বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক। রোববার (২২ মার্চ) সকালে সংবাদকে তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষার সব প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সারা দেশে প্রশ্নপত্রও পাঠানো হয়ে গেছে। তবে, করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে, পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়া নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মধ্যেও বিষয়টি নিয়ে দুঃশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, এইচএসসি পরীক্ষা সংক্রান্ত সিদ্ধান্তটি আজ বা আগামীকালের মধ্যেই শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দেয়া হবে।

এদিকে, সূচি অনুযায়ী আগামী ১ এপ্রিল এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। তবে শনিবার (২১ মার্চ) এই পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ২৮ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে দেশের সব শিক্ষাবোর্ড।

শনিবার (২১ মার্চ) ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এস এম আমিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের অধীনস্ত সব কলেজ ও জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এস এম আমিরুল ইসলামের স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত পত্রে শনিবারে বলা হয়, ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র বিতরণ কার্যক্রম ২৮ মার্চ ২০২০ তারিখ পর্যন্ত অনিবার্য কারণে স্থগিত করা হল। পরীক্ষার্থীদের নিজ বাসায় থেকে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে।

পহেলা এপ্রিল থেকে চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সারা দেশের প্রায় ১২ লাখ শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবে। দেশজুড়ে আড়াই হাজারের বেশি পরীক্ষা কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ১২ লাখ পরীক্ষার্থীর পাশাপাশি এ পরীক্ষায় শিক্ষক, ম্যাজিস্ট্রেট, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্মকর্তা-কর্মচারী মিলিয়ে আরও প্রায় তিন লাখ মানুষের সম্পৃক্ততা রয়েছে।

এদিকে, কারোনা পরিস্থিতে সরকার থেকে বড় ধরনের লোক সমাগম আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা থাকায় আগামী ১ এপ্রিল থেকে দেশজুড়ে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে কিনা সে বিষয়ে মন্ত্রণালয় এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি।

সূত্র:সময় নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *