প্রচারণা শেষ হলেও সিটি নির্বাচনে মাঠে থাকবে ছাত্রলীগ

রাজধানী ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পাড় করেছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।নৌকাকে বিজয়ী করতে সিটি নির্বাচনে নিঃস্বার্থ কাজ করেছে জানিয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেছেন, প্রচারণা শেষ হয়েছে। তবে প্রচারণা না চালালেও যে কোন রকম ষড়যন্ত্র রুখে দিতে ছাত্রলীগের নেতার্কমীরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে মাঠে থাকবে।

সিটি নির্বাচনের প্রচারণা শেষে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের পরবর্তী অবস্থান নিয়ে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ইত্তেফাককে এসব কথা জানান তিনি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কখনো কোন অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয় না। গণতান্ত্রিক নির্বাচন সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন করতে প্রত্যেক এলাকায় সজাগ থাকবে ছাত্রলীগ। সেই সাথে আগামী পহেলা ফেব্রুয়ারি সারাদিন সুষ্ঠ ভোটের মাধ্যমে জয় নিয়ে ঘরে ফিরবে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

নৌকার প্রচারণায় একটি সমন্বয় সেল গঠন করা হয়েছে উল্লেখ করে ছাত্রলীগ সভাপতি আরও বলেন, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করতে নিঃস্বার্থভাবে কাজ করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। নৌকার পক্ষে সারা ঢাকা সিটিতে গণজোয়ার উঠেছে।

জানা যায়, রাজধানী ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিতে একটি সমন্বয় সেল গঠন করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে লেখক ভট্টাচার্যের অধীনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতারাসহ সকল স্তরের নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে সমন্বয় সেল গঠন করা হয়েছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৯ নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসের পক্ষে প্রচারণারত কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মেহেদি হাসান তাপস জানান, এ ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতিদিনিই মাঠে ছিল ছাত্রলীগ। আমরা পুরো টিম এলাকার বাসিন্দাদের ঘরে ঘরে গিয়ে বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরেছি। ভোটাররাও আমাদের অনুরোধে ব্যাপক সাড়া দিয়েছেন।

তাপস বলেন, প্রচারণা শেষ হলেও কেন্দ্রের নির্দেশে আমরা ভোটের মাঠে থাকবো । জামায়াত বিএনপির নাশকতা উপেক্ষা করে ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে সেদিকে ছাত্রলীগ সজাগ দৃষ্টি রাখছে।

এদিকে সিটি নির্বাচনে ঢাকার বাহিরে থেকে প্রচুর বহিরাগত নিয়ে এসেছে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দলের নেতাকর্মীরা সতর্ক পাহারা দিবে । আমাদের কাছে খবর এসেছে বিএনপি প্রচুর বহিরাগতকে ঢাকায় জড়ো করেছে। এদের মধ্যে দাগী আসামি, চিহ্নিত সন্ত্রাসীরাও রয়েছে।

আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক প্রস্তুতি নিচ্ছে জানিয়ে দলটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, কেন্দ্রগুলোতে আমাদের নেতাকর্মীরা সতর্ক পাহারা দেবে, যাতে করে জনগণের ভোট রক্ষার বিষয়টি আমরা নিশ্চিত করতে পারি। আমরা চাই কেন্দ্রগুলোতে নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু থাকুক।

সুত্র: ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *