বগুড়ায় আরো তিনজন করোনায় আক্রান্ত, এক বৃদ্ধের মৃত্যু

বগুড়ায় ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জফেরত দুই নারীসহ আরো তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বগুড়ার সিভিল সার্জন ডা. গাওসুল আজিম চৌধুরী মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আক্রান্ত তিনজনের মধ্যে দুজনের বাড়ি সারিয়াকান্দি উপজেলায় আর একজনের বাড়ি পাশের সোনাতলা উপজেলায়। এ নিয়ে বগুড়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত পাঁচজনের সন্ধান পাওয়া গেল।

এর আগে ঢাকা ফেরত আদমদীঘির এক পুলিশ কনস্টেবল এবং নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা ওই একই উপজেলার এক অটোরিকশাচালক করোনা আক্রান্ত বলে স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়। তাদের দুজনকেই করোনা আইসোলেশন ইউনিট মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলায় মঙ্গলবার বিকেল ৪টা থেকে বগুড়া জেলাকে লকডাউন (অবরুদ্ধ) করার ঘোষণা দেয় জেলা প্রশাসন।

সিভিল সার্জন ডা. গাওসুল আজিম চৌধুরী জানান, সারিয়াকান্দি ও সোনাতলার যে তিনজন করোনা পজিটিভ বলে শনাক্ত হয়েছেন তারা ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে ফেরার পর থেকেই হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। ১৭ এপ্রিল তাদের নমুনা সংগ্রহ করে ১৮ এপ্রিল রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার রাতে আমাদের জানানো হয়েছে ওই তিনজনের করোনা পজিটিভ এসেছে। তিনি জানান, তাদেরকে আইসোলেশন ইউনিটে আনা হবে। তাদের বাড়িঘর লকডাউন করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, ওই তিনজনের মধ্যে সারিয়াকান্দির বাসিন্দা পুরুষের বয়স ২৫ আর একই উপজেলার সেই নারীর বয়স ২০। তবে সোনাতলা উপজেলার বাসিন্দা অপর নারীর বয়স ৪৭।

এদিকে বগুড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশন ইউনিটে মঙ্গলবার আরো এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তি জ্বর, কাশি ও শ্বাস কষ্ট নিয়ে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি হন।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল পৌনে ৬টায় তার মৃত্যু হয়। তার বাড়ি শহরের নিশিন্দারা শৈলালপাড়ায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, মৃত্যুর পর নিয়ম অনুযায়ী তার নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় যে ব্যক্তিকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল তিনি শহরের চারমাথা এলাকার একটি পেট্রল পাম্পের কর্মচারী ছিলেন। ‘৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি গত শুক্রবার থেকে জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হন। মঙ্গলবার তার শ্বাস কষ্ট শুরু হয়। এরপর বিকেলে তাকে হাসপাতালে আনা হয়। তিনি বলেন, আমি খোঁজ নিয়ে জেনেছি ওই ব্যক্তির ডায়াবেটিসও ছিল।

সূত্র: কালের কণ্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *