ভাঙ্গুড়ায় হাত-পা ও মুখ বেঁধে গৃহবধূর চুল কেটে দিলো শশুরবাড়ির লোকজন

পারিবারিক কলহের জেরে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় খাদিজা খাতুন (২৫) নামের এক গৃহবধূকে মারধর করে হাত-পা ও মুখ বেঁধে চুল কেটে দিয়েছেন তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি। পরে বাড়ি থেকে পালিয়ে পাশের মামার বাড়িতে আশ্রয় নেন ওই গৃহবধূ।উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতিত খাদিজা ওই গ্রামের শাহেদ ফকিরের স্ত্রী। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ গতকাল শুক্রবার ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুই সন্তানের জননী খাদিজা খাতুন জানান, পারিবারিক অভাব-অনটন নিয়ে মাদকাসক্ত স্বামী শাহেদ হোসেনের সাথে প্রায়ই ঝগড়া হয় তার। এরই জেরে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে খাদিজার শয়নঘরে ঢুকে তার স্বামী শাহেদ, শ্বশুর মালেক ফকির ও শাশুড়ি শাহিদা খাতুন মারধর করে। এক পর্যায়ে খাদিজার হাত-পা ও মুখ বেঁধে কাঁচি দিয়ে চুল কেটে দেয় তারা।

পরে এ ঘটনা কারো কাছে প্রকাশ করবে না শর্তে খাদিজাকে ছেড়ে দেয় তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি। গতকাল শুক্রবার ভোরে সুযোগ বুঝে খাদিজা বাড়ি থেকে পালিয়ে পাশেই তার মামা আবুল কালামের বাড়িতে আশ্রয় নেন। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।এ বিষয়ে ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা জানান, হাসপাতালে গৃহবধূর খোঁজখবর নিয়ে তাকে অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। আসামিদের ধরতে পুলিশ এরই মধ্যে অভিযান শুরু করেছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *