ভারতের সাতটি রাজ্যে পঙ্গপাল হানা, পশ্চিমবঙ্গে সম্ভাবনা কম

ভারতের সাতটি রাজ্যে পঙ্গপাল হানা, পশ্চিমবঙ্গে সম্ভাবনা কমভারতের সাতটি রাজ্যে ইতোমধ্যে পঙ্গপাল হানা দিয়েছে। এসব রাজ্যের প্রায় ৫০ হাজার হেক্টর ফসলি জমি ধ্বংস করেছে পঙ্গপাল। ভারতে ঢুকে পড়া পঙ্গপালের ঝাঁক রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ এবং পাঞ্জাবে ফসল সাবাড় করেছে।

দেশটির বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন করে এর ব্যাপকতা যেভাবে অতি দ্রুত গতিতে ছড়াতে শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ যদি জুনের মধ্যে তা নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারে তাহলে ধান, ভুট্টা, বেত, তুলা ও সয়াবিনসহ হাজার হাজার হেক্টর জমির ফসল ধ্বংস হয়ে যাবে।

তবে এখনও পশ্চিমবঙ্গে পঙ্গপাল আসার খবর পাওয়া যায়নি। কিন্তু পঙ্গপাল নিয়ে গুজব রয়েছে এ রাজ্যে। ঝাড়গ্রাম ও বীরভূম জেলায় পঙ্গপাল হানার খবর ছড়িয়ে পড়েছে।

তবে প্রাণিবিজ্ঞানীরা ছবি দেখে নিশ্চিত করেছেন, ওই পতঙ্গ পঙ্গপাল নয়। রাজ্যের পতঙ্গবিশারদ শ্রীময়ী বসু বলেন, ‘বীরভূমের পতঙ্গটি গঙ্গাফড়িং জাতীয়, রাজস্থানের মরু পঙ্গপাল নয়।’

বিশেষজ্ঞদের যুক্তি, বর্ষা এলে বাতাস বঙ্গোপসাগর থেকে রাজস্থানের দিকে বইবে। পঙ্গপাল যেহেতু হাওয়ার অনুকূলে ওড়ে, তাই পশ্চিমবঙ্গে ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা কমবে। আর রাজস্থানে বৃষ্টি শুরু হলে ডিম পাড়তে মরুভূমি এলাকায় পৌঁছে যাবে পঙ্গপাল।

জাতিসংঘের ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশন (ফাও) ইতালির রোম থেকে গোটা বিশ্বের পঙ্গপালের ওপর নজরদারি চালায়। সর্বশেষ ‘লোকাস্ট ওয়াচ’-এ তারা জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিনে মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, ছত্তিসগড় তো বটেই, পূর্বের বিহার, ওডিশায়ও ফসলের ক্ষতি করতে পারে পঙ্গপাল।

এদিকে রোববার পশ্চিমবঙ্গের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শুক্রবারের মধ্যে বর্ষা ঢুকে পড়বে রাজ্যে।

সাধারণত জুন থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফ্রিকার মরু পঙ্গপাল রাজস্থান, গুজরাট, হরিয়ানার মরু অঞ্চলে ডিম পাড়তে আসে। খাবারের খোঁজে তারা সৌদি আরব, ইরান, পাকিস্তান হয়ে ঢুকে পড়েছে ভারতেও। গত কয়েক সপ্তাহে রাজস্থান, গুজরাট, পাঞ্জাবের গণ্ডি পেরিয়ে পঙ্গপাল পৌঁছেছে মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশেও।

শেয়ার করুন ও লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: