ভারতে করোনায় আক্রান্ত ৬ লাখ ছাড়িয়েছে

ভারতে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে অধিকাংশই মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু ও দিল্লির বাসিন্দা। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫ লাখ ৫ হাজার ২২০ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ১৭ হাজার ৮৪৮ জন।

তবে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৩ লাখ ৫৯ হাজার ৮৯৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ১৯ হাজার ৪২৮ জন এবং মারা গেছে ৪৩৮ জন।

এদিকে, মহারাষ্ট্রে নতুন করে ৫ হাজার ৫৩৭ জন আক্রান্ত হয়েছে। অপরদিকে তামিলনাড়ুতে ৩ হাজার ৮৮২ জন এবং দিল্লিতে আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ৪৪২ জন।

ভারতে যত মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে তার মধ্যে ৯০ শতাংশই ১০ মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, তেলঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, হরিয়ানা ও কর্নাটকের বাসিন্দা।

দিল্লিতে অবশ্য সংক্রমণের হার আগের তুলনায় কমেছে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল দাবি করেছেন, বিশেষজ্ঞরা রাজধানীতে করোনা যে হারে ছড়াবে বলে আশঙ্কা করেছিলেন, তার চেয়ে অনেক কম সংক্রমণ হয়েছে।

লকডাউনে কিছু কিছু ছাড় দেওয়ার পরেই দ্রুত বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত সোমবার কেন্দ্রীয় সরকার ‘আনলক টু’ ঘোষণা করে। এতে বলা হয়েছে, কেবল কনটেনমেন্ট জোনে কড়াকড়ি এখনও চলবে। সারা দেশে কোথাও স্কুল-কলেজ এখনও চালু হয়নি। মেট্রো পরিষেবা এবং আন্তর্জাতিক বিমানও বন্ধ রয়েছে। যে কোনও বড় জমায়েতও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে ভারতে তৈরি করোনার প্রতিষেধক কোভ্যাক্সিন মানুষের ওপরে পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া। চলতি মাসেই পরীক্ষা শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন, ভ্যাকসিন প্রথমেই দেওয়া হবে চিকিৎসক, নার্স, অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী এবং সমাজের দুর্বলত শ্রেণির মানুষদের।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

শেয়ার করুন ও লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: