সংবাদ শিরোনাম
Home / সারাদেশ / রাজশাহী / রাজশাহীতে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে কিন্তু সচেতনতা দেখা নেই মানুষের মাঝে

রাজশাহীতে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে কিন্তু সচেতনতা দেখা নেই মানুষের মাঝে

রাজশাহীতে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে কিন্তু সচেতনতা দেখা নেই মানুষের মাঝেরাজশাহী শহরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দিন দিন বাড়তে শুরু করেছে। প্রথম দিকে দিয়ে দেখা যেত, শুধু বাইরে থেকে আসা মানুষের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেলেও এখন শহর ছেড়ে কোথাও যাননি এমন মানুষেরও করোনা শনাক্ত হচ্ছে। কিন্তু মানুষের মাঝে দেখা যাচ্ছে না  সচেতনতা বিন্দু মাত্রও। মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি। 

রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক শুক্রবার সকালে জানিয়েছেন, নগরীতে এ পর্যন্ত শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ৩৮ জন। আর জেলা ও মহানগরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১১৬ জন। এদের মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন তিনজন। সুস্থ হয়েছেন ৩৩ জন। শহরে সুস্থ হয়েছেন পাঁচজন।

রাজশাহী নগরীর বাইরে জেলার বাঘা উপজেলায় ৯ জন, চারঘাটে ১২, পুঠিয়ায় ১১, দুর্গাপুরে ৪, বাগমারায় ৯, মোহনপুরে ৯, তানোরে ১৫, পবায় ৮ এবং গোদাগাড়ীতে ১ জন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। রাজশাহী জেলা ও মহানগরে এখনও ৮০ করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়ে যাচ্ছেন।

সিভিল সার্জন জানান, গেল ১২ এপ্রিল জেলার পুঠিয়া উপজেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হন। প্রথম দিকে শুধু রাজশাহীর বাইরে থাকা আসা লোকজনের মধ্যেই করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। কিন্তু এখন অনেকেই শনাক্ত হচ্ছেন যার কোনো ট্রাভেল হিস্টরি নেই। তারা স্থানীয়ভাবেই আক্রান্ত হচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয়ভাবেই করোনার সংক্রমণ শুরু হলেও রাজশাহীতে মানুষের মাঝে কমছে সচেতনতা। রাজশাহী মহানগরীতে লোকজন মাস্ক পরলেও অনেকেই নাক-মুখের নিচে নামিয়ে রাখছেন। সামাজিক দূরত্ব দূরে ঠেলে গাদাগাদি করে উঠছেন অটোরিকশায়। গোটা শহরই এখন থাকছে লোকে-লোকারণ্য। আর গ্রামের মোড়ে মোড়ে মানুষের সচেতনতা আরও কম। মাস্ক ছাড়াই ঘুরে বেড়াচ্ছেন অনেকে।

এদিকে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রোধে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত নগরীতে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। আগে থাকা এ সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার (১১ জুন) নতুন করে ঘোষণা করা হয়েছে। মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে শুরু হয়েছে জরিমানা করাও।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক জানিয়েছেন, মাস্ক না পরাসহ অন্যান্য অপরাধে বৃহস্পতিবার জেলাজুড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়েছে। এ সময় ১৬৫টি মামলায় ১ লাখ ২৫ হাজার ৪৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধিতে বিতরণ করা হয়েছে ৭ হাজার ৫৬০ পিস মাস্ক। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে প্রশাসন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

Check Also

নাটোর শহরে পরকীয়ায় স্ত্রী ও বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন

নাটোর শহরে পরকীয়ায় স্ত্রী ও বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন

পরকিয়ার কারণে স্ত্রী ও বড়ভাই মিলে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে নাটোর শহরতলির তেবাড়িয়া এলাকার ওমর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *