শ্রীমঙ্গলে একই ঘরে ঘুমন্ত মা ও মেয়ে খুন

শ্রীমঙ্গলে একই ঘরে ঘুমন্ত মা ও মেয়ে খুনমৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে একই ঘরে মা ও মেয়ে খুন হয়েছে। শুক্রবার (৫ জুন) দুপুরে উপজেলার আশিদ্রোন ইউনিয়নের পূর্ব জামসী এলাকা থেকে মা জায়েদা বেগম (৫৫) ও মেয়ে ইয়াসমিন আক্তার (২৫) এর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়, প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে মা ও মেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। রাতের কোনো এক সময় ঘরের পিছনে বেড়া ভেঙ্গে তাদের খুন করা হয়েছে বলে ধারণা করেন এলাকাবাসী। প্রদিনই খুব সকাল ঘুম থেকে উঠেন আশেপাশের মানুষেরা কিন্তু জায়েদা বেগম ও তার মেয়ে শুক্রবার সকাল সকাল ৯টা অবদি দরজা খুলেন নাই।

এই অবস্থা দেখে পাশের বাড়িতে বসবাসকারী নিহত জায়েদা বেগমের বোন মিনারা বেগম এলাকার মেম্বার ও চেয়ারম্যানকে খবর দিলে তারা বাড়িতে পৌছায়। পরে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে তাদের লাশ উদ্ধার করে।

নিহত জায়েদা বেগমের ছেলে মো. ওয়াহিদ মিয়া জানান, আমি আমার শশুর বাড়িতে ছিলাম, আমার খালা আমাকে ফোন করে এ ঘটনা জানালে আমি দৌড়ে এসে দেখি আমার মা ও বোনের লাশ খাটের উপরে পড়ে আছে। সে বলেন আমার মা ও বোনকে খুন করা হয়েছে।

নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী ধারনা করছেন মেয়ের জামাই এ কর্মকাণ্ড ঘটাতে পারে। এলাকার কারও সাথে তাদের কোন বিরোধ ছিলো না। কিন্তু নিহত ইয়াসমিনের স্বামী আজগর আলীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ছিলো।

বিরোধ থাকা অবস্থায় মায়ের বাড়িতেই থাকতেন মিনারা বেগম। এ ঘটনায় মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহমেদ পিপিএম ( বার) শ্রীমঙ্গল কমলগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আশরাফুজ্জামান, শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুছ ছালেক, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) নয়ন কার্টুন সহ পুলিশের একটি টিম পরিদর্শন করেন।

এব্যাপারে পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহমেদ জানান, এঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ, সি.আইডি ও ডিবি পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত হয়ে এ ঘটনার রহস্য উদঘাটনের চেষ্ঠায় আছেন। মা- মেয়েকে একসাথে খুন করার বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।এঘটনার সাথে জড়িতদের খুব শীঘ্রই খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে। প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

শেয়ার করুন ও লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: