‘সচেতনতার জন্য প্রশাসনকে মাঠে নামানো হয়েছে, জুলুম করার জন্য নয়’

মাস্ক না পরার কারণে বৃদ্ধদের কান ধরানোয় সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) সাইয়েমা হাসান অন্যায় করেছেন বলে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক।

জাগো নিউজের কাছে এক প্রতিক্রিয়ায় মন্ত্রী বলেন, এসিল্যান্ড সাইয়েমার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

শুক্রবার (২৭ মার্চ) ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মাস্ক না পরার অপরাধে তিন বৃদ্ধের কান ধরিয়ে ওঠবস করান এসিল্যান্ড সাইয়েমা। এই ঘটনার ছবি সাইয়েমা নিজের মোবাইল ক্যামেরায় ধারণ করে ফেসবুকে পোস্ট করেন। এরপরই সমালোচনার ঝড় বইতে থাকে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে যশোরের মণিরামপুরের চিনাটোলা বাজারে এ ঘটে।

সমালোচনার মুখেই সাইয়েমা হাসানকে প্রত্যাহার করা হয়েছে আজ শনিবার। এখন তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করে ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন সচিব।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমলারা হচ্ছেন জনগণের সেবক। জনগণ আমলাদের কোনো কাজে যদি মনে কষ্ট পান, তা মেনে নেয়া যায় না।’

তিনি বলেন, ‘করোনার প্রভাব দূর করতে হলে সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। এই সচেতনতার জন্যই পুলিশ, সেনাবাহিনী, প্রশাসনকে মাঠে নামানো হয়েছে। কাউকে জুলুম করার জন্য নয়। করোনা নিয়ে মানুষ আতঙ্কে রয়েছে। এর মধ্যে যদি বাড়তি আতঙ্ক সৃষ্টিতে কেউ ভূমিকা রাখে, সে অন্যয় করছে।’

মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘এসিল্যন্ড সাইয়েমা যা করেছেন, তা অন্যায়। এজন্য তার শাস্তির বিধান রয়েছে। মাস্ক না পরার অপরাধে বৃদ্ধদের কান ধরনোর ঘটনা খুবই অশোভন মনে হয়েছে। তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। বিভাগীয় সিদ্ধান্তে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছি।’

সূত্র: জাগোনিউজ 24

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *